ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৭ ফাল্গুন ১৪২৬
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

১২ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম আপডেট: ২৬.০১.২০২০ ১২:০৮ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 111

চীনসহ ১২টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে নতুন নিউমোনিয়া সদৃশ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। বাংলাদেশও শঙ্কামুক্ত নয়। কারণ দক্ষিণ এশিয়ার নেপালেও ছড়িয়েছে ভাইরাসটি।
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াসহ ইউরোপ-আমেরিকাও এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের মহামারী ঠেকাতে লড়াই করে যাচ্ছে। আন্তর্জাতি গণমাধ্যমের তথ্যানুযায়ী করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১৩শ ছাড়িয়ে গেছে। একদিনের ব্যবধানে মৃতের সংখ্যাও ২৬ থেকে বেড়ে ৪১ এ গিয়ে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে ভাইরাসটির বিরুদ্ধে লড়াইরত এক চিকিৎসকও আছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।
এদিকে করনো ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে হুবেই প্রদেশের উহান শহরের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন রেখেছে চীন। এতে করে উহান শহর কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সেখানকার বাসিন্দাদের সঙ্গে আটকা পড়েছেন অন্তত ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। উহানে আটকে পড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের অনেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেশে ফেরার আকুতি জানিয়েছেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ আটকে পড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কোনো খোঁজখবর নিচ্ছে না বাংলাদেশ দূতাবাস। তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শিক্ষার্থীরা হটলাইন নম্বরের মাধ্যমে যেকোনো সময় যোগাযোগ করতে পারবেন।
অন্যদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরের চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনে সতর্কতা জারি করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ পথে ভারত থেকে আগত বিদেশি নাগরিকদেরও স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু করেছেন স্বাস্থ্য কর্মীরা। বেনাপোল চেকপোস্ট হয়ে বাণিজ্য ও ভ্রমণে চীনসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিক যাতায়াত করে বিধায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এ পথে যাতায়াতকারীরা।
ইমিগ্রেশনে কর্মরত উপসহকারী মেডিকেল অফিসার আব্দুল মজিদ জানান, চীনে করোনা ভাইরাস ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়ছে। ইতোমধ্যে আক্রান্ত হয়ে অনেকে মারা গেছেন। বাংলাদেশেও এ ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে এজন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সতর্কতা জারি করেছে। তারা বিদেশি যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন। এ ছাড়া এ ভাইরাসের লক্ষণ সম্পর্কেও সচেতন করছেন।
চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হুবেই ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজিতে মেকানিক্যাল অ্যান্ড অটোমেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী রাকিবুল তূর্য (২৩) উহান শহরের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, সম্প্রতি চায়নায় ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শহর উহানে আমি বাস করছি। এখানে আমরা প্রায় ৫শ জনেরও অধিক বাংলাদেশি উহানের বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ে ব্যাচেলর, মাস্টার্স ও পিএইচডি প্রোগ্রামে অধ্যায়নরত। উহান থেকে বহির্গামী সব বাস-ট্রেন এবং বিমান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আমরা চাইলেও এখন নিজ দেশে ফিরে যেতে পারছি না।
তিনি আরও লিখেছেন, বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আমাদের খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে এমন নিউজ বাংলাদেশের মিডিয়ায় প্রচার করা হলেও এ খবর ভিত্তিহীন। আমাদের এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার খোঁজ নেওয়া হয়নি। আমরা সবাই কঠিন মুহূর্ত পার করছি। আল্লাহ তায়ালা যেন আমাদের সবাইকে এ বিপদ থেকে রক্ষা করেন।
ইমশিয়াত শরিফ নামের পিএইচডি করতে যাওয়া এক বাংলাদেশি তার ফেসবুক ওয়ালে লেখেন, চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাস ভয়াবহভাবে ছড়াচ্ছে। স্থানীয় সরকার বাস, ট্রেন, বিমান সব বন্ধ করে দিয়েছে। দোকানপাট বন্ধ। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে। এদিকে ইউনিভার্সিটিতে চলছে শীতকালীন ছুটি। ফলে ক্যাস্পাস ফাঁকা, উহান শহরটা একদম জনশূন্য। আতঙ্ক এবং উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তবুও থেমে নেই জীবন। চলছি চলার মতো করে।
পরিস্থিতি সামলাতে গণপরিবহন বন্ধ করে দেওয়ায় উহান ও পাশর্^বর্তী হুয়াংগ্যাং শহরের অন্তত দুই কোটি বাসিন্দা কার্যত আটকা পড়েছে। উহানের সঙ্গে বিমান ও রেল যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, নেপাল, ফ্রান্স, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ায়ও আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান পাওয়া গেছে। উহান থেকে ১৯ জানুয়ারি আসা এক চীনা নাগরিকের শরীরে করোনা ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়া। মেলবোর্নের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বয়স ৫০-এর ঘরে থাকা ওই ব্যক্তির পরিস্থিতি স্থিতিশীল বলেও জানিয়েছে তারা। শুক্রবার সন্ধ্যায় ফরাসি কর্তৃপক্ষ ইউরোপে নতুন করোনা ভাইরাসটিতে আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তির উপস্থিতির খবর নিশ্চিত করে। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন জানিয়েছে, তারা প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ৬৩ জনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন; এর মধ্যে দুই ব্যক্তির শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গেছে। আক্রান্ত দুই ব্যক্তিই উহান থেকে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন, বলে জানিয়েছে তারা। চীনে পড়তে যাওয়া এক শিক্ষার্থীর দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়ার কথা জানিয়েছে নেপাল। শুক্রবার এক ঘোষণায় দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ এ কথা জানায়। শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষও তিন নাগরিকের শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্তের তথ্য দেয় বলে স্ট্রেইট টাইমস জানিয়েছে।
মৃত্যু এবং আক্রান্তদের বেশিরভাগই উহান শহরের। হুবেই প্রদেশের এ রাজধানী থেকেই গত বছর নতুন এ করোনা ভাইরাস উদ্ভুত হয়েছিল বলে অনুমান করা হচ্ছে। গত সপ্তাহে বিশ^স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) নতুন এ করোনা ভাইরাসটির কারণে চীনে জরুরি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে ঘোষণা করলেও, এখনি আন্তর্জাতিকভাবে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেনি বলে জানিয়েছিল।
চীনা নববর্ষের ছুটির মধ্যে দেশটির কোটি কোটি মানুষ একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে যাতায়াত করলে সংক্রমণ হু হু করে বাড়তে পারে বলেও কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা করছে। চীনে লুনার নিউ ইয়ারের সপ্তাহব্যাপী ছুটি শুরু হচ্ছে। পরিস্থিতি সামলাতে বেইজিংয়ে সব বড় উৎসব ও মন্দিরের মধ্যে মেলা নিষিদ্ধ করা হয়েছে, চলচ্চিত্র মুক্তি স্থগিত এবং পর্যটনপ্রিয় নিষিদ্ধ নগরী বন্ধ রয়েছে। হুবেই প্রদেশের প্রায় ২ কোটি মানুষকে অন্যদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়েছে। উহানের সঙ্গে বিমান ও রেল যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যাতায়াত বন্ধ রয়েছে বেশির ভাগ সড়কেও। উহানের সর্বত্র ফেসমাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে; কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে শহরটি একটি ভুতুড়ে নগরীতে পরিণত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ে জেনেভায় বৈঠকও করেছে বিশ^স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। নতুন চান্দ্র বর্ষ উদযাপন সামনে রেখে ঘরমুখী মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে শুক্রবার থেকে চীন ১০টি শহরে গণপরিবহন ও সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোর মন্দির বন্ধ করে দিয়েছে। পর্যটকদের অন্যতম গন্তব্য ‘নিষিদ্ধ শহর’ ও গ্রেট ওয়ালের একটি অংশও বন্ধ রাখা হয়েছে।








সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]