ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ৫ এপ্রিল ২০২০ ২১ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ৫ এপ্রিল ২০২০

ছেলের নির্যাতন থেকে মুক্তি চাই : সংবাদ সম্মেলনে মা
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: বুধবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২০, ৯:৩৭ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 48

ভোলায় সংবাদ সম্মেলন করে ছেলের নির্যাতন থেকে মুক্তি চেয়েছেন  নির্জাতিতা মা মোসাম্মৎ সাহানা পারভীন।

জানা যায়, ছেলে শামিম মাহমুদ শিমুল ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা ভূমি অফিসের অফিস সহকারী। আর সেটাকেই হাতিয়ার বানিয়ে মায়ের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে জমিজমা সহ মায়ের করা দোকান।

বুধবার দুপুরে ভোলা শহরের একটি পত্রিকা অফিসে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন শিমুলের মা। একই সঙ্গে ছেলের বিচার চেয়ে ভোলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আল ছিদ্দিকের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। মোসাম্মৎ সাহানা পারভীনের বাড়ি চরফ্যাশন উপজেলার পৌরসভা ৫নং ওয়ার্ডের শরীফপাড়া এলাকায়।

সাহানা পারভীন তার লিখিত অভিযোগে জানান, দীর্ঘ প্রায় ৪৩ বছর ধরে চরফ্যাশন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের শরীফ পাড়ায় বসবাস করছেন তিনি। তার দুই ছেলে এক মেয়ে। মেয়ের বিয়ে হয়েছে। এবং ছোট ছেলে মো. মাহমুদুল হাসান আমার সঙ্গে থাকে। বড় ছেলে মো. শামিম মাহমুদ শিমুল চরফ্যাশন উপজেলা ভূমি অফিসের অফিস সহকারী পদে কর্মরত আছে। পারিবারিক কলহের কারণে সে বিগত ১৬ বছর ধরে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে আলাদা বসবাস করছে।

তিনি আরও জানান, চরফ্যাশনের শরীফপাড়ার বাড়িটির ৮২ শতাংশ জমি তার নামে। ওই জমিতে তার বসত ঘর ও কিছু দোকানপাট রয়েছে। যেগুলো তিনি ভাড়া দিয়ে সংসার চালান। কিন্তু তার বড় ছেলে দীর্ঘদিন যাবৎ তাকে ওই জমি ও দোকান ঘর তার নামে লিখে দিতে চাপ প্রয়োগ করে আসছে। তিনি লিখে না দেয়ায় স্থানীয় রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে এবং তার মাদকাসক্ত বন্ধুদের দিয়ে তার ও অন্য সন্তানদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে। গত কিছুদিন আগে শিমুল স্থানীয় মাস্তানদের দিয়ে তার দোকানের ভাড়াটিয়াদের মারধর করে দোকানের তালা ভেঙে তিনটি দোকান দখল করে নিয়েছে। প্রতিনিয়ত সে তাকে মানসিক নির্যাতন ও গালমন্দ করে আসছে। যাতে করে সে (মা) এ বাড়ি থেকে চলে যায়।

এ বিষয়ে ভোলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক বলেন, শামিম মাহমুদ শিমুলের বিরুদ্ধে তার মা সাহানা পারভীন লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। ইতোমধ্যে তাকে মনপুরায় বদলি করা হয়েছে। এবং তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ছেলে মো. শামিম মাহমুদ শিমুলের যোগাযোগ করলে তিনি এ ব্যাপারে কোনো জবাব দেননি।


আরও সংবাদ   বিষয়:  ছেলের নির্যাতন থেকে মুক্তি চাই  




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]