ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২ ফাল্গুন ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার জয়
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: সোমবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৩:৫৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 143

ফুটবলের ছোট্ট জাদুকর বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি যেন মাঠে নামেন সবাইকে চমকে দিতে। নতুন নতুন অবিশ্বাস্য কীর্তি গড়া রীতিমতো অভ্যাসে পরিণত হয়েছে তার। সেটা হোক গোল করে কিংবা করিয়ে। যেদিন তার পা থেকে গোল আসে না, সেদিন বন্যা বয়ে যায় এসিস্টের কিংবা দুর্দান্ত সব স্কিলে পরাস্ত করেন প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের।

রোববার রাতে তেমনই এক প্রদর্শনী দেখা গেলো রিয়াল বেটিসের ঘরের মাঠ বেনিতো ভিলামারিনে। গোল করতে পারেননি মেসি, তবে সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ৩টি। তার এসিস্টের হ্যাটট্রিকের সুবাদে ৩-২ গোলের স্বস্তির জয় নিয়ে ন্যু ক্যাম্পে ফিরেছে বার্সেলোনা।

তুলনামূলক দুর্বল দল রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে শুরুটা একদমই ভালো ছিলো না কাতালুনিয়ানদের। ম্যাচের মাত্র ৬ মিনিটের সময় ডি-বক্সের মধ্যে হ্যান্ডবল করেন ক্লেমেন্ত লংলে। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সহজ সুযোগ পেয়ে স্পটকিক থেকে গোল করেন বেটিসের সার্জিও কানালেস।

তবে সমতায় ফিরতে সময় নেয়নি কিকে সেতিয়েনের শিষ্যরা। তিন মিনিটের মধ্যেই স্কোরলাইন ১-১ করেন বার্সেলোনার ডাচ মিডফিল্ডার ফ্রেংকি ডি ইয়ং। অধিনায়ক মেসির উঁচু করে বাড়িয়ে দেয়া বল, অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে বুক দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নেন ডি ইয়ং। পরে দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি।

ঘরের মাঠে খেলতে নামা বেটিস এতে দমে যাওয়ার পাত্র ছিলো না। ম্যাচের ২৬ মিনিটে ফের লিড নেয় তারা। এবারও নিজেদের ভুলের মাশুল দিতে হয় বার্সাকে। মাঝমাঠে প্রতিপক্ষ ফরোয়ার্ড নাবিল ফেকিরের কাছে বল হারান আর্তুরো ভিদাল। ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে বল জালে জড়ান ফেকির।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠা ম্যাচে, এগিয়ে থেকে বিরতিতে যাওয়া হয়নি বেটিসের। প্রথমার্ধের অতিরিক্তি যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে মেসির ফ্রি কিক থেকে ডি-বক্সের মধ্যে ফাঁকায় বল পেয়ে যান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সার্জিও বুসকেটস। ঠাণ্ডা মাথার ফিনিশিংয়ে ম্যাচে সমতা ফেরান তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে লিড নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে বার্সেলোনা। তবু গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয় ৭২ মিনিট পর্যন্ত। মেসির মাপা ক্রসে নিখুঁত হেড করেন ক্লেমেন্ত লংলে। বার্সা পায় জয়সূচক গোল, এসিস্টের হ্যাটট্রিক পূরণ হয় মেসির।

এরপর ম্যাচে উল্লেখযোগ্য ঘটনা বলতে ছিলো ৭৬ মিনিটে নাবিল ফেকির ও ৭৯ মিনিটে ক্লেমেন্ত লংলের লাল কার্ড দেখার ঘটনা। দুজনই দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের কারণে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন।

এ জয়ের পর নিজেদের দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে বার্সেলোনা। ২৩ ম্যাচে ১৫ জয় ও ৪ ড্রতে তাদের সংগ্রহ ৪৯ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]