ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ১ এপ্রিল ২০২০ ১৭ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার  বুধবার ১ এপ্রিল ২০২০

খালেদার মুক্তিতে রাজপথে আন্দোলনের ঘোষণা বিএনপির
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:৪৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 75

ব্যারিকেড-বাধা দিয়ে আন্দোলন থামানো যাবে না মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ১৬ কোটি মানুষের নয়নের মনি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আমাদের ঘোষিত কর্মসূচি ছিল বিক্ষোভ মিছিল। এতে পুলিশ বাধা দিয়েছে, নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করেছে, কার্যালয়ের সামনে ব্যারিকেড দিয়ে বাধা দিয়েছো। পৃথিবীতে নির্যাতন করে কেউ টিকে থাকতে পারেনি।

শনিবার বিকেল পৌনে ৪টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকার ভাবছে এভাবে দমন নিপীড়ন বাধা দিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করবে। জনগণের যে প্রাণের দাবি তাকে বাধাগ্রস্ত করবে। কিন্তু জনগণের ন্যায্য দাবিকে কখনও দমন নিপীড়ন করে দমন করা যায় না।

স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আজকের সমাবেশকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু নেতাকর্মীদের সাহসিকতার ফলে আজকের এ সমাবেশ সফল হয়েছে।

মির্জা আব্বাস বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে শত প্রতিকুলতার মাঝেও আমরা এখানে সমবেত হয়েছি। আমাদেরকে খালেদা জিয়ার প্রতি ভালোবাসা নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের জেলে নিক, নির্যাতন করুক, গুম খুন করুক কোনো কিছুতেই প্রতিবাদ থামবে না। আমাদের আন্দোলন চলতেই থাকবে।

আবদুল মঈন খান বলেন, সরকার বিচার বিভাগকে প্রভাবিত করে খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছে না। কারণ সরকার জানে খালেদা জিয়া মুক্ত হয়ে রাজপথে নামলে জনগণের স্রেতে সরকার ভেসে যাবে। তাই খালেদা জিয়ার জামিন বাধাগ্রস্ত করছে। তাকে আটকে রাখছে।

আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমরা মায়ের মুক্তির সংগ্রাম কেউ থামাতে পারে না। কোনো ভাবে বাধাগ্রস্ত করতে পারে না। মায়ের মুক্তি জনগণ, গণতন্ত্র, আইনের স্বাসন, ও স্বাধীনতার মুক্তি। মায়ের মুক্তির আন্দোলনের আমাদের যোগ দিয়ে মাকে মুক্ত করতে হবে।

দুপুর ২টার দিকে বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা ফুটপাথের সামনে অবস্থান নিয়ে স্লোগান শুরু করেন।

তখন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আমাদেরকে মিছিল করতে পুলিশ অনুমতি দিল না। এর প্রতিবাদে আমরা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করব কার্যালয়ের সামনে।’

সকালে দলটির নেতারা জানান, সরকারের ওপর নতুন করে চাপ সৃষ্টি করতে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ যাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে বড় জমায়েত করার লক্ষ্যে দলটি প্রস্তুতি নিয়েছে। সম্প্রতি যৌথসভা করে দলটির কেন্দ্রীয় বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পাশাপাশি ঢাকা মহানগরসহ রাজধানীর আশপাশের আট জেলার নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ জন্য দুপুর ২টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের জড়ো হতে বলা হয়েছে।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আজিজুল বারি হেলাল, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে বিএনপি প্রার্থী ইশরাক হোসেন প্রমুখ।
প্রসঙ্গত, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার রায়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাবন্দী হন খালেদা জিয়া। তার পর থেকে গত দুই বছরের অধিক সময় সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী কারাগারে রয়েছেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]