ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ২৮ মার্চ ২০২০ ১৩ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২৮ মার্চ ২০২০

জয়ে ফিরল শেখ জামাল-আরামবাগ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:২০ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 13

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে নিজেদের ঘরের মাঠেই মুখ থুবড়ে পড়ল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। মঙ্গলবার গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে তাদের ২-১ গোলে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। হার দিয়ে লিগ শুরু করা সাবেক চ্যাম্পিয়নরা দ্বিতীয় ম্যাচেই ফিরল জয়ের ধারায়। একই দিনে জয়ের ধারায় ফিরেছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘও। স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনীকে ২-১ গোলে হারিয়েছে তারা।
নিজেদের প্রথম ম্যাচে আরামবাগ হেরেছিল মোহামেডানের কাছে। শুরুর সেই ধাক্কা দারুণভাবেই সামলে উঠেছে দলটি। মঙ্গলবার চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছে তারা। এলিটা কিংসলের গোলে ৩৭ মিনিটে লিড নেয় আরামবাগ। কিন্তু ইনজুরি সময়ে সাখাওয়াত হোসেন রনির গোলে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। কিন্তু স্বস্তি নিয়ে বিররতিতে যাওয়া হয়নি তাদের। কারণ পরের মিনিটেই ম্যাচে নিজেদের দ্বিতীয় গোল করেন এলিটা, স্কোরলাইন করে দেন ২-১। দ্বিতীয়ার্ধে কোনো দল গোল করতে না পারায় ওই স্কোরলাইন নিয়েই শেষ হয় ম্যাচ। জয়ে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে আরামবাগ।
গোপালগঞ্জে ঘরের মাঠে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ছিল ছন্নছাড়া। ক্যাসিনো কাণ্ডে মুখ থুবড়ে পড়া মুক্তিযোদ্ধা কোনোমতে ধকল কাটিয়ে এবার দল গড়েছে তারা। তাদের বাজির ঘোড়া গত আসরে ভালো করা দুই বিদেশি পল এমিল আর ইসমাইল বাঙ্গুরা। সঙ্গে আছে আরও তিন বিদেশি। কিন্তু ওই বিদেশিরাও আলোর মুখ দেখাতে পারেননি মুক্তিযোদ্ধাকে। বুধবার অবশ্য ম্যাচের শুরু থেকে জামালের বিপক্ষে বেশ কঠিন প্রতিরোধই গড়ে তুলেছিল আবদুল কাইয়ুম সেন্টুর শিষ্যরা।
চতুর্থ মিনিটেই প্রথম গোলের দেখা পেতে পারত শেখ জামাল। তাদের একটি আক্রমণ রুখে দিতে পোস্ট ফাঁকা রেখে বক্সের বাইরে চলে এসেছিলেন মুক্তির গোলরক্ষক। কিন্তু সেই সুযোগটি হেলায় হারিয়েছে শফিকুল ইসলাম মানিকের শিষ্যরা। তবে ৪২ মিনিটে আক্ষেপ ঘুচিয়েছে তারা। গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ওমর বক্সে ঢুকে আচমকা শটে বল পাঠিয়ে দেন মুক্তিযোদ্ধার জালে। ম্যাচে লিড নেয় শেখ জামাল (১-০)। প্রথমার্ধে আর সেই গোলটি শোধ দিতে পারেনি স্বাগতিক দলটি। ফলে পিছিয়ে থেকেই বিশ্রামে যেতে হয়েছে তাদের।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ম্যাচে সমতা আনে মুক্তিযোদ্ধা। ৪৮ মিনিটে প্রায় মাঝমাঠ থেকে বল এগিয়ে যান পল এমিল। চেষ্টা করেও তাকে রুখতে পারেনি মানিকের শিষ্যরা। বক্সে ঢুকে ডান প্রান্ত থেকে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়িয়ে দিয়ে উল্লাসে মেতে উঠেন এমিল (১-১)। তার অমন দুর্দান্ত গোলও মুক্তিযোদ্ধাকে পুরোপুরি জাগিয়ে তুলতে পারেনি। তবে জেতার প্রচেষ্টা ঠিকই চালিয়ে গেছে শেখ জামাল। ৭৩ মিনিটে সফলও হয় তারা। ডিফেন্ডার মোজাম্মেল হোসেন নিরার ক্রস থেকে উড়ে আসা বলে পোস্টের কাছ থেকেই মাথা ছুঁইয়ে গোল আদায় করে নেন জামালের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড সলোমন কিং (২-১)। সেই গোল আর শোধ করতে পারেনি মুক্তিযোদ্ধা। দুই বিদেশির গোলে জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে শেখ জামাল।









সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]