ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০ ১৫ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০

বাংলাদেশে ব্যাঙের নতুন প্রজাতির সন্ধান
সোহাগ রাসিফ
প্রকাশ: শনিবার, ১৪ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 9

বেশি বেশি অনুসন্ধান করে লুকিয়ে থাকা বিষয়গুলো খুঁজে বের করে প্রকাশ্যে আনাই আবিষ্কার। আবিষ্কারের নেশা যাদের একবার চেপে বসে, তাদের আর নিস্তার নেই, দিন-রাত যেন গবেষণাগার কিংবা গবেষণার মাঠেই সময় কাটে। এ নেশায় তারা আক্রান্ত হবেনই। অজানাকে জানার, অদেখাকে দেখার দুর্বার কৌত‚হলই আবিষ্কারের নেশার পেছনে কাজ করে। এভাবেই যুগান্তকারী উদ্ভাবনগুলো সম্পন্ন হয়েছে। দুজন তরুণ প্রাণী গবেষক নতুন এক প্রজাতির ব্যাঙ আবিষ্কার করেছেন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের ব্যাঙের তালিকায় যুক্ত হলো নতুন এক প্রজাতি রাউর্চেস্টাস রেজাখানি। নতুন প্রজাতির এ ব্যাঙের সন্ধান পাওয়া গবেষক দম্পতি হচ্ছেন জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ের (জবি) প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ষষ্ঠ ব্যাচের হাসান আল রাজি চয়ন এবং একই বিভাগের ১২তম ব্যাচের মারজান মারিয়া। পুরো গবেষণা কাজটির সার্বিক তত্ত¡াবধায়নে ছিলেন আরেক প্রাণীবিজ্ঞানী সংযুক্ত আরব আমিরাত বিশ^বিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাবির বিন মোজাফফর। হাসান আল রাজি চয়ন ও মারজান মারিয়া তাদের গবেষণা প্রসঙ্গে বলেন, ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে মে মাসে মৌলভীবাজার জেলার লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান ও আদমপুর সংরক্ষিত বন থেকে ব্যতিক্রমধর্মী ছোট আকৃতির কিছু ব্যাঙ সংগ্রহ করেন। যার দৈর্ঘ্য সর্বনি¤œ ১৮ মিলিমিটার এবং সর্বোচ্চ ২২ মিলিমিটার দেখতে পান। ব্যাঙগুলোর শারীরিক গঠন, ডিএনএ এবং অন্য
পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর দেখা যায় একটি ব্যাঙ এর আগে কখনও আবিষ্কার হয়নি। আর ব্যাঙটির ডাক অন্য ব্যাঙের ডাকের চেয়ে ভিন্ন।
ব্যাঙটি সংগ্রহের পর আমরা নানা
পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখেছি এ ব্যাঙটি সম্পর্কে আগে কোনো তথ্য কোথাও প্রকাশ হয়নি। ব্যাঙটির নামকরণ সম্পর্কে তিনি বলেন, আমরা ব্যাঙটির নাম দিয়েছি বাংলাদেশের বিখ্যাত প্রাণীবিজ্ঞানী ড. আলী রেজা খানের নাম অনুসারে। বাংলাদেশের বন্যপ্রাণীর গবেষণা ও সংরক্ষণে ড. আলী রেজা খানের ভ‚মিকা অপরিসীম। তিনি আরও বলেন, ওই ব্যাঙ সম্পর্কিত গবেষণাপত্রটি শিগগিরই আমেরিকান বিখ্যাত জার্নাল জুকিসে প্রকাশিত হবে। এ আবিষ্কার তিনি দেশবাসীকে মুজিব বর্ষের একটি উপহার হিসেবে দিতে চান।
প্রাণীবিজ্ঞানী সাবির বিন মোজাফফর বলেন, এ ব্যাঙের সন্ধান পাওয়ার ফলে বাংলাদেশ তথা বিশে^র ব্যাঙের তালিকায় নতুন একটি ব্যাঙ যুক্ত হলো। নতুন এ ব্যাঙের প্রজনন, জীবনচক্র, আবাস ইত্যাদি জানার জন্য এবং এদের সংরক্ষণের জন্য আরও বিষাদ গবেষণা করা প্রয়োজন। ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচারের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে উভচর প্রাণীর প্রজাতির সংখ্যা ছিল ৪৯টি। নতুন এ প্রজাতির ব্যাঙ আবিষ্কারের মাধ্যমে এখন তা ৫০-এ দাঁড়াল। এ সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]