ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ ২১ আষাঢ় ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ৬ জুলাই ২০২০

করোনাভাইরাস সংক্রমণের শঙ্কা
সাংবাদিক পুলিশের নিরাপত্তা চেয়ে রিট
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ২৩ মার্চ, ২০২০, ৫:৫৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 658

করোনাভাইরাস সংক্রমণের শঙ্কার মধ্যে দায়িত্বরত সাংবাদিক, পুলিশ ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের নিরাপত্তা সরঞ্জাম (পিপিই) সরবরাহের নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জে আর খার রবিন সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জনস্বার্থে রিট আবেদনটি দায়ের করেন। রিটে ডায়াগনস্টিক সুবিধা, কোয়ারেন্টাইন ও চিকিৎসাসেবা বাড়ানোর নির্দেশনাও চাওয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, জনপ্রশাসন সচিব, সমাজকল্যাণ সচিব, তথ্য সচিব, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মহাব্যবস্থাপক, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান, পুলিশের আইজি ও আইইডিসিআরসহ মোট ১১ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৯ মার্চ আইনজীবী মো. জে আর খান রবিন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ সংক্রান্ত একটি নোটিশ পাঠান।

এ বিষয়ে আইনজীবী রবিন বলেন, ‘করোনাভাইরাস চীনে প্রথম ধরা পড়লেও বর্তমানে বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় ২শ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। যদিও এর উৎপত্তি ও চিকিৎসা এখনও অজানা রয়েছে। তাছাড়া এ ভাইরাস ছোঁয়াছে।

তাই ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি এবং এক জনগোষ্ঠী থেকে অন্য জনগোষ্ঠীতে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে প্রায় ১৩ হাজার মানুষ মারা গিয়েছেন। বাংলাদেশেও তিন জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সাংবাদিক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও চিকিৎসকরা দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অসংখ্য মানুষের মুখোমুখি হচ্ছেন।

এছাড়া দেশের সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও সাংবাদিক ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বাইরে কাজে বের হতেই হবে। তাই তাদের ও জনসাধারণের নিরাপত্তার স্বার্থে করোনায় জরুরি সেবাদানকারীদের নিরাপত্তা সরঞ্জাম সরবরাহ আবশ্যক। কিন্তু এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় রিটটি করা হয়েছে।




এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]