ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০ ২২ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০

দুর্গম সাজেকে হামে ৭ শিশুর মৃত্যু, হেলিকপ্টারযোগে মেডিকেল টিম
রাঙামাটি প্রতিনিধি
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ মার্চ, ২০২০, ৬:৫৫ পিএম আপডেট: ২৪.০৩.২০২০ ৭:০৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 152

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতির মাঝে জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার দুর্গম সাজেকে হামের প্রাদুর্ভাব বেড়ে গেছে। মাত্র বিশ দিনের ব্যবধানে চার দফায় এ পর্যন্ত হামে আক্রান্ত ৭ শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দুর্গত এলাকায় আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার যোগে আরো ২ জন মেডিকেল অফিসারসহ ৫ সদস্যের মেডিক্যাল টিম পাঠানো হয়েছে। এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা শতাধিক বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র।

সূত্র জানিয়েছে, চিকিৎসাধীন অবস্থায় সর্বশেষ সোমবার সাজেক ইউনিয়নের লুঙথিয়ান এলাকায় মারা গেছেন ক্ষেতবালা ত্রিপুরা (১৩) ও গত রোববার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন গোরাতি ত্রিপুরা (৯) ।

সরকারি তথ্যমতে, সাজেকে হামে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৭ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছে।

১৭ মার্চ পর্যন্ত ৫ জন, ১৯ মার্চ ৪ জন, ২৩ মার্চ ৩ জন, ও ২৪ মার্চ ২ জন ডাক্তারসহ ৫ জনের স্বাস্থ্যকর্মীদল পাঠানো হয়েছে।

এ পর্যন্ত রাঙামাটি স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে ১৭ সদস্য হাম রোগ নিয়ন্ত্রণে দুর্গত এলাকায় কাজ করছেন বলে রাঙামাটি সিভিল সার্জন বিপাশ খীসা এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেন।

তিনি আরো জানান, স্বাস্থ্য বিভাগের টিমের সাথে মঙ্গলবার থেকে দুর্গত এলাকায় ১ জন ডাক্তারসহ আর্মি মেডিক্যাল কোরের একটি টিম কাজ করছে।

স্থানীয় বিজিবি সদস্যরাও দুর্গত এলাকায় রোগীদের সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। দুর্গম সাজেক এলাকার লোকজন কুসংস্কারে বিশ্বাসী। তারা এলাকা ছেড়ে রাঙামাটি মেডিক্যালে আসতে অনিচ্ছুক হওয়ায় সঠিক চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান সিভিল সার্জন।

বাঘাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ইফতেখার আহম্মদ জানান, সাজেকে মুমুর্ষ অবস্থায় থাকা হামে আক্রান্ত দুই শিশুকে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় হেলিকপ্টারে করে জেলা সদরে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। এমন অবস্থায় সোমবার এক শিশুর মৃত্যু হয়।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব জিতু জানান, সাজেকের দুর্গম এলাকায় হঠাৎ হামের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার পর সেখানে স্বাস্থ্য বিভাগের চারটি মেডিকেল টিম গিয়ে চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এ ছাড়া সাজেকে হামের প্রাদুর্ভাব ও আক্রান্ত ৭ শিশুর মৃত্যু নিয়ে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে একটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদন দ্রুততম সময়ে দেওয়া হবে। এদিকে দুর্গম সাজেকে হঠাৎ হামের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ায় ইপিআই ম্যানেজার ডা. মাওলানা বক্স চৌধুরীর নেতৃত্বে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডা. আরিফুল ইসলামসহ ঢাকা থেকে চার সদস্যের একটি চিকিৎসক দল বাঘাইছড়ি গেছেন। 

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারি সাজেক এলাকায় থেকে হামের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]