ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০ ১৮ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০

গ্রামে করোনা সচেতনতার বালাই নেই
প্রকাশ: বুধবার, ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 44

গোটা বিশে্ব করোনাভাইরাসের সংক্রমণে দিনকে দিন বেড়েই চলছে আক্রান্তের সংখ্যা। কোনোভাবেই থামছে না মৃত্যুমিছিল। তবে এত আতঙ্ক, আক্রান্ত আর হতাশার মাঝেও আশার কথা হচ্ছে আক্রান্তদের ভেতর সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন অনেকে।
দেশের গণমাধ্যম বেশ শক্তভাবে প্রচারণা চালাচ্ছে, যাতে করে মানুষ সতর্ক আর সাবধান থাকেন। তবে ঢাকার বাইরে গ্রামের অবস্থা খুবই নাজুক। গ্রামের অধিকাংশ মানুষ জানেনই না রোগের লক্ষণ কিংবা প্রতিকারের কথা। কিছু কিছু এখনও অসচেতন। তারা জানেনই না এটি কীভাবে ছড়ায়। অতএব সচেতনতার সঠিক বার্তা গ্রামেও পৌঁছাতে হবে। কেননা গ্রামের চায়ের দোকানগুলো গবেষণার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। কেউ বলছেন থানকুনি পাতা খেতে। আর কেউ কয়লা দিয়ে কপালে টিপ দেওয়ার কথা বলছেন। গ্রামে মাস্ক পরে বাজারে গেলে, সবাই ভাবছে, হয়তো করোনা হয়েছে। কেউ কাছে আসে না। আর সব থেকে বড় কথা হাতেগোনা দুয়েকজন ছাড়া কারও মুখেই মাস্ক নেই। তাদের দাবি, গ্রামে এসবের বালাই নেই। সংবাদমাধ্যমে আর ঝিনাইদহের চন্ডিপুরে করোনা প্রতিকারে চুল ধুয়ে পানি খেয়েছে গ্রামবাসী। স্বপ্নে দেখা, কোরআন শরিফের ভেতরে থাকা চুল ধুয়ে পানি খেলে নাকি করোনাভাইরাস হবে না।
ইতোমধ্যে দেশের কয়েকটি উপজেলা লকডাউন হয়েছে। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দূরপাল্লার গণপরিবহন। দেশের বিভিন্ন স্থানে আক্রান্তের খবর আসছে, সবচেয়ে বড় আতঙ্ক বিদেশ থেকে যারা এসেছেন, তারা অনেকেই নিয়ম মেনে হোম কোয়ারেন্টাইন মানছেন না। ফলে আতঙ্ক বাড়ছে দেশের বিভিন্ন জেলার মানুষের ভেতর। অন্যদিকে করোনার প্রভাবে অনেক স্থানে খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রীর দাম বাড়িয়েছে। এভাবে দাম বাড়তে থাকলে, যথাযথ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না হলে সাধারণ মানুষ পড়বে চরম দুর্ভোগে। দেশের অনেক মানুষ নিম্ন মধ্যবিত্ত। মফস্বলে যার হার আরও বেশি। অধিকাংশই দিন আনে দিন খায়। এ বিষয়ে দায়িত্বশীলদের সুদৃষ্টি দিতে হবে।

ষ সায়মা আক্তার স্বর্ণা
     শিক্ষার্থী, সরকারি তিতুমীর কলেজ





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]