ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০ ১৮ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০

ঝুঁকি নিয়েও মাঠে নিরাপত্তা বাহিনী
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৭ মার্চ, ২০২০, ৯:৪৬ পিএম আপডেট: ২৬.০৩.২০২০ ১১:৫১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 23

সারা বিশ্বেই প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস নিয়ে সবাই এখন মহা আতঙ্কে। খুব বড় প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাচ্ছেন না সচেতন মানুষেরা। অথচ এমন মৃত্যুঝুঁঁকি নিয়েই স্ত্রী, সন্তান কিংবা স্বজনদের মায়া-মমতা কাটিয়ে সাধারণ মানুষকে নিরাপদে রাখতে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশ। নিজের জীবন অনেকটা উৎসর্গ করার মানসিকতা নিয়েই দিনরাত নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীসহ বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা। তারা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা বিপদগ্রস্ত মানুষদের ফলমূল ও নানা ধরনের খাবার সরবরাহের পাশাপাশি মাইকিং করে ও পোস্টার-লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে সামাজিক সচেতনতার কাজ করছেন তারা। সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা দুর্গম পাহাড়, গভীর সমুদ্র-উপক‚ল কিংবা চরাঞ্চলÑ সর্বত্রই করোনা সংক্রমণ রোধে জনসাধারণের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) পরিচালক লে. কর্নেল আবদুল্লাহ ইবনে যায়েদ সময়ের আলোকে বলেন, সারা বিশে^র মতো বাংলাদেশও করোনাভাইরাসের এ মহাদুর্যোগে পড়েছে। এ অবস্থায় সরকারের নির্দেশে সশস্ত্র বাহিনী স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। নিজের জীবন ও স্বজনদের কথা না ভেবে দেশের জন্য সাধারণ মানুষের জীবন রক্ষায় কাজ করছেন সেনা, নৌ ও বিমানবাহনীর সদস্যরা।
তিনি জানান, সারা দেশে ইতোমধ্যে ৬১ জেলায় প্রায় ৩ হাজার সেনা সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া উপক‚লীয় ছয়টি জেলায় (দুটি পরোপুরি) বাংলাদেশ নৌবাহিনী কাজ করছে। একইভাবে নির্দেশিত দায়িত্ব পালন করছে বিমানবাহিনীও। এসব নির্দেশিত দায়িত্বের বাইরেও করোনা আক্রান্ত, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষসহ দরিদ্র অসহায়দের মাঝে খাদ্য ও মাস্কসহ নানা উপকরণ বিতরণ করা হচ্ছে।
সশস্ত্র বাহিনী ছাড়াও মাঠে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন পুলিশ সদস্যরা। বিশেষ করে বিদেশফেরত ব্যক্তি বা প্রবাসীদের বিষয়ে সার্বক্ষণিকভাবে মনিটরিং করছে পুলিশ।
পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা বলেন, করোনাভাইরাস এমন এক রোগ বা দুর্যোগ যা কেবল সচেতনতা ও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের নির্দেশনা মেনে চললেই অনেকাংশেই এটির সংক্রমণ ঠেকানো যাবে। তাই সাধারণ মানুষদের সচেতন করতে ও স্বাস্থঝুঁকি কমাতে কোথাও কোথাও আইন প্রয়োগ করা হচ্ছে। অনেক সময় পুলিশের পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থাও থাকছে না। এমন ঝুঁকি নিয়েই দেশের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ।
হোম কোয়ারেন্টাইনদের বাড়িতে ফলমূল পাঠাচ্ছে সেনাবাহিনী। বৃহস্পতিবার রাঙামাটিতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা বিদেশফেরত ব্যক্তিদের উপহারস্বরূপ ফলমূল পৌঁছে দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকালে শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রবাসফেরত ব্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এ ফলমূল পৌঁছে দেন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা।
রাঙামাটিতে দীর্ঘদিন ধরে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ১১২ জনের জন্য রাঙামাটি রিজিয়ন থেকে এ শুভেচ্ছা উপহার দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাঙামাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সকাল থেকেই বিভিন্ন এলাকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার তদারকি করছে। এ ছাড়া সামাজিক দূরত্ব সৃষ্টি করতে কাজ করে যাচ্ছে স্থানীয় প্রশাসনসহ নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। হাট-বাজার থেকে শুরু করে সব জায়গায় যাতে একের অধিক মানুষ একসঙ্গে না থাকতে পারে সেই বিষয়ে কাজ করছেন তারা।
একইভাবে বৃহস্পতিবার দেশের অধিকাংশ এলাকায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সার্বক্ষণিকভাবে নিয়োজিত ছিল সেনাবাহিনী।
বৃহস্পতিবার সিলেট নগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে জীবাণুনাশক স্প্রেসহ পথচারীদের হাতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়েছে পুলিশ। এ সময় সাধারণ মানুষকে অযথা বাইরে ঘোরাফেরা না করার জন্য সচেতনতামূলক মাইকিং করা হয়। মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
অন্যদিকে পটুয়াখালীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক ইতালি প্রবাসীর ফোন পেয়ে তার বাড়ির বাজার করে দিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের কলেজ রোড এলাকায় ওই প্রবাসীর বাড়িতে প্রবাসীর দেওয়া তালিকা অনুযায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিয়েছেন সদর থানা পুলিশের সদস্যরা। এসব পণ্যের মধ্যে রয়েছেÑ পেঁয়াজ, রসুন, আলু, মসুর ডাল, আঙুর, আপেল, মাল্টা ও খাবার পানিসহ আরও অনেক কিছু। এ ছাড়াও গত কয়েকদিনে সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন দেশের বিভিন্ন এলাকায় করোনা বিপর্যয়ে মানবিকভাবেই এগিয়ে এসেছে বলে জানা যায়।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]