ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০ ২২ চৈত্র ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০

সরকার করোনা যুদ্ধ মোকাবেলায় প্রস্তুত
প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে আশ্বস্ত হলো জাতি
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৭ মার্চ, ২০২০, ১১:০৫ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 14

বিশ্ব জুড়ে ছোবল দিয়েছে করোনা। বাংলাদেশেও থাবা বসিয়েছে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। দেশের মানুষ যখন আতঙ্কিত, ঠিক সেই মুর্হূতে, স্বাধীনতা দিবসের প্রক্কালে ২৫ মার্চ সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন। দৃঢ়চিত্তে বঙ্গবন্ধুকন্যা বললেন, ‘সরকার করোনা যুদ্ধ মোকাবেলায় প্রস্তুত। এই যুদ্ধ জয়ে আমাদের সবাইকে ঘরে থাকতে হবে।’ তার এই ভাষণে আশ^স্ত হলো গোটা জাতি। ধন্যবাদ ও
কৃতজ্ঞতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।
পৃথিবীর ১৯৬টি দেশ করোনাভাইরাসের ভয়ঙ্কর থাবায় পার করছে আতঙ্কিত সময়। আক্রান্ত কয়েক লাখ। মৃতের সংখ্যা ২১ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছে ১ লাখ ১০ হাজারের মতো। বাংলাদেশেও এর মধ্যে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা শনাক্ত হয়েছে ৪৪ জন। সুস্থ হয়ে ফিরেছে ১১ জন। দেশের এমন ক্রান্তিকালে দেশ জুড়ে বৃহস্পতিবার থেকে অলিখিত লকডাউন শুরু হয়েছে। বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশ মোতাবেক করোনাভাইরাস সংক্রমণের একমাত্র প্রতিষেধক সতর্কতা। সে কারণে দেশ জুড়ে চলছে সতর্কতা। সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণাসহ ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত অফিস-আদালত ছুটি দেওয়া হয়েছে। স্বাধীনতা দিবসের সব ধরনের কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে। সংক্রমণ রোধে জনগণকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে ভাষণে বলেছেন, ‘যেকোনো কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার প্রস্তুত। আজ বিশ^ এক অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে চলছে। তবে যেকোনো কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য আমাদের সরকার প্রস্তুত রয়েছে। আমরা জনগণের সরকার। সবসময়ই আমরা জনগণের পাশে আছি। আমি নিজে সর্বক্ষণ পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছি। সম্মিলিত চেষ্টায় করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকার সফল হবে। ১৯৭১ সালে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা শত্রæর মোকাবেলা করে বিজয়ী হয়েছি। করোনাভাইরাস মোকাবেলাও একটা যুদ্ধ। এ যুদ্ধে আপনার দায়িত্ব ঘরে থাকা। সবার চেষ্টায় আমরা এ যুদ্ধে জয়ী হব। করোনার প্রাদুর্ভাবের এ সময়ে কেউ যেন গুজব না ছড়ায়। গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ জনগণকে আতঙ্কিত না হওয়ার আহŸান জানিয়েছেন তিনি। ‘আতঙ্কিত হবেন না। আতঙ্ক মানুষের যৌক্তিক চিন্তাভাবনার বিলোপ ঘটায়। সবসময় খেয়াল রাখুনÑ আপনি, আপনার পরিবারের সদস্যরা এবং আপনার প্রতিবেশীরা যেন সংক্রমিত না হন। আপনার সচেতনতা আপনাকে, আপনার পরিবারকে এবং সর্বোপরি দেশের মানুষকে
সুরক্ষিত রাখবে।’
বর্তমানে বিশ^ জুড়ে চলছে ভয়ঙ্কর ক্রান্তিকাল। বাংলাদেশও তার বাইরে নয়। করোনাভাইরাস সংক্রমণে পৃথিবী জুড়ে মানুষের মধ্যে বিরাজ করছে আতঙ্কিত অস্থিরতা। বিশ^শক্তিধর দেশগুলোর ভয়াবহ পরিস্থিতিতে আমাদের দেশের মানুষের মাঝে যে নৈরাজ্য বিরাজ করছিল, জাতির উদ্দেশে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ যেন এ জনগোষ্ঠীর সাহসের দরজা খুলে দিয়েছে। করোনা মোকাবেলায় তার সরকারের প্রস্তুতিতে জনগণ আশান্বিত। ইতোমধ্যে আমাদের স্বাস্থ্য খাত যথেষ্ট পারঙ্গমতার সঙ্গে কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা যদি আগামী দিনগুলোতে সরকার এবং বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশাবলি মেনে চলি তাহলেই কেবল প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরাভ‚ত করা সম্ভব হবে। আমরা বিশ^াস করি, প্রধানমন্ত্রী একজন আশাবাদী, দৃঢ়চিত্তের মানুষ। যেকোনো পরিস্থিতিতে দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে নৈরাজ্যকে শক্তিতে রূপান্তর করার মনোবল তার রয়েছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের এ যুদ্ধে জয়ী হয়ে আমরা সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সক্ষম হব এ প্রত্যয় রাখছি।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]