ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার শুক্রবার ৫ জুন ২০২০

করোনায় নিষ্প্রাণ ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা
মামুন সোহাগ, তিতুমীর কলেজ
প্রকাশ: রোববার, ২৯ মার্চ, ২০২০, ৫:২৩ পিএম আপডেট: ২৯.০৩.২০২০ ৭:১০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 763

লম্বা ছুটি। যে ছুটি ইতিমধ্যে এক দফা বেড়েছে, আরো বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ কোভিড -১৯। এই ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে বন্ধ আছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। স্বভাবতই ক্যাম্পাসগুলোর সরব চত্ত্বর আজ নীরব।

বছর কয়েক ধরে দেশের প্রায় সব ক্যাম্পাসেই সাংবাদিকতা বেশ জনপ্রিয় ও সংবাদচর্চার জায়গা হয়ে উঠেছে। তাই ক্যাম্পাসগুলোতে যেকোনো বিষয়ে লেখালেখিতে বেশ সোচ্চার দেখা যায় বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইনের ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের। নেশায় অনেকটা দাপুটের সঙ্গে চলতো তাদের রোজকার কর্মযজ্ঞ। তবে মহামারী করোনাভাইরাসের জন্য থমকে গেছে সব ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা। বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোর ছাত্রাবাস বন্ধ থাকায় সাংবাদিকরাও নিজ ঘরে ফিরে গেছেন।  তারা বলছেন, করোনায় ক্যাম্পাস সাংবাদিকতার জন্য এখন ভালো সময় যাচ্ছে না।

গ্রামে হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকে অনেকেই লিখছেন ক্যাস্পাসে স্মৃতিচারণ নিয়ে, কেউ বা গ্রামের স্বেচ্ছাসেবী কাজ নিয়ে লিখছেন। সব মিলিয়ে কেমন যাচ্ছে ক্যাম্পাস মাতিয়ে বেড়ানো সাংবাদিকদের দিনগুলো।
 
এমন পরিস্থিতিতে কখনও পড়তে হয়নি জানিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেইলি বাংলাদেশ পোস্টের প্রতিনিধি মাহবুব এ রহমান বলেন, ক্যাম্পাস বন্ধ হয়ে গেলেও আসলে নিউজের নেশাটা তো আর ছাড়তে পারি না। তাই ইভেন্ট নিউজ তেমন না থাকলেও কিছু স্পেশাল নিউজের খোঁজাখুঁজি করি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক অধিকারের প্রতিনিধি মো. হাসান বিশ্বাস বলেন, করোনা সংকটে বেশির ভাগ ক্যাম্পাস সাংবাদিকেরা নিজ গ্রামে ফিরে গেছেন এবং মানুষদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করছেন। আমিও একই কাজ করছি। আশা করি শিগগিররই মহামারী কাটিয়ে উঠবে গোটা বিশ্ব।

স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকার নিউজের প্রতিনিধি খাদিজা খাতুন স্বপ্না বলেন, সব থেকে বেশি মিস করছি প্রিয় ক্যাম্পাস ও প্রিয় ডিপার্টমেন্টকে। এই ছুটিটা আন্দদের না, অনেকটা আতংকের মধ্যেই কাটছে দিনগুলো। আর ভার্সিটিতে যেহেতু অনলাইনে ক্লাস চলছে টুকটাক হোমওয়ার্কও দিচ্ছেন টিচাররা। সেগুলো করা হচ্ছে।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কালের কণ্ঠ পত্রিকার প্রতিনিধি সুমাইয়া আখতার তারিন বলেন, ক্যাম্পাস অফ থাকায় বাড়িতে এসে মুভি দেখা, বই পড়া, গান শোনা, টিভিতে নিউজ দেখা, অনলাইনে নিউজ পড়া, ফেসবুক, ইউটিউব নিয়েই সময় কাটছে।

শিক্ষার্থীদের কাছে ছুটি মানেই আনন্দের উল্লেখ করে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক অধিকার পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সরকার আব্দুল্লাহ তুহিন বলেন, তবে মহামারীর ছুটি বিষাদের। করোনা ঝড় থামিয়ে দিয়েছে সকল প্রাণচাঞ্চল্য, অনুরূপভাবে থেমে গেছে ক্যাম্পাস সাংবাদিকদেরও ছোটাছুটি। ক্যাম্পাসের সর্বত্র বিচরণ করা সাংবাদিকদেরও সময় কাটছে ক্ষুদ্র আবদ্ধ গন্ডিতে।

সরকারি তিতুমীর কলেজের রাইজিং বিডি ডট কমের প্রতিনিধি নাজমুল হুদা বলেন, কলেজ বন্ধ। একটু মনটা খারাপ লাগে। কলেজের দূর্বাঘাসে বসতে পারি না। ক্যাম্পাস ঘুরে ফিচার লিখতে পারছি না।

এছাড়া, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একুশে টিভির (অনলাইন) প্রতিনিধি মো. ওমর ফারুক বলেছেন, বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। তাই বাংলাদেশের মত ঘনবসতিপূর্ণ দেশে প্রানঘাতী ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় দেশে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার।  সেজন্য কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থী পাশাপাশি বাসায় অবস্থান করছে ক্যাম্পাস সাংবাদিকরাও। যেহেতু এ মুহূর্তে তেমন কোনো কাজ নেই তাই ছোট- ঘনবসতিপূর্ণ দেশে মানুষদেরকে সচেতন করা ছাড়া বিকল্প কিছুই হতে পারে না।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]