ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ২৫ মে ২০২০ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ২৫ মে ২০২০

ইয়েস বাংলাদেশ: ক্ষুধার বিরুদ্ধে তারুণ্যের লড়াই
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০, ৫:৫২ পিএম আপডেট: ০৭.০৪.২০২০ ৬:০৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 299

সমাজে কিছু মানুষ আছেন, প্রায়শই তাদের উনুনে জ্বলে না আগুন, চড়েনা তাতে হাঁড়ি। সেই খোঁজটা পৌছায়না তার পাশের বাসাটাতেও। এরা নিজের মনকে বুঝিয়ে ক্ষুধার্ত আর্তনাদকে বাক্স বন্দি করে ফেলে নিমিষেই। কারন তাদের আত্মসম্মানবোধ যে,তাদেরকে হাত পাতা থেকে, দূরে সরিয়ে রাখে। আর এরাই নিম্ন মধ্যবিত্ত নামে পরিচিত এই সমাজে। এমন ৫শ পরিবারের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার প্রত্যয় নিয়ে কাজ করে একটি সংগঠন- ইয়েস বাংলাদেশ। বাংলাদেশে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকে সংগঠনটির ৪০ সদস্য এক নতুন লড়াইয়ে নেমেছে। যে লড়াই ক্ষুধার বিরুদ্ধে, অসহায় মানুষের স্বার্থে।

২৪ মার্চ থেকে শুরু হয় ইয়েস বাংলাদেশের এই সামাজিক আন্দোলন। #StandForHunger #FightAgainstCOVID-19 এই ব্যানারে ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক সহায়তায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে সংগঠনটি।  রাজধানীর মিরপুর, পুরান ঢাকার পাশাপাশি সাভার, যশোর, চুয়াডাংগা এলাকায় ইতোমধ্যে দেড় শতাধিক স্বল্প আয়ের পরিবারের মুখে হাসি ফুটিয়েছে এই সংগঠনটি।

এই কাজ করতে গিয়ে তাদের ঝুলিতে যুক্ত হয়েছে অগণিত মানুষের ভালোবাসা আর টুকরো টুকরো গল্প।

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা তাবিয়া ইসলাম একটি গল্প তুলে ধরেন এভাবেই- ‘হারুন আর রশিদ। পেশায় একজন রিকশাচালক। ২ দিন আগে বের হয়েছিলেন রিকশা নিয়ে। পুলিশের লাঠির আঘাত তার পা টার্গেট করতে ভুল করেনি, তারপর থেকেই তিনি বাসায়। পাড়া প্রতিবেশিদের কাছ থেকে জানা যায় এই দুইদিন একবেলা করে হাড়ি চাপেনি তার চুলোয়। তার সাথে কথা বলার সময় বেশ বোঝা যাচ্ছিলো যে সে ভালোই। এমন খবর পেয়েই ইয়েস বাংলাদেশ পাশে দাঁড়িয়েছে হারুনুর রশিদের।’

এছাড়াও মানুষকে সচেতন করতে নানা কর্মসূচি পালন করেছে তারুণ্যদীপ্ত এ সংগঠন।  প্রতিষ্ঠাতা তাবিয়া ইসলাম বলেন, ‘২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়ন অর্জনে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিভিন্ন জেলার মোট ৪০ জন তরুণ এখানে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে যুক্ত আছেন।’ তাদের এই সামাজিক আন্দোলনের সঙ্গে কেউ যুক্ত হতে চাইলে তাদের ফেসবুক পেইজে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে- www.facebook.com/yesbangladesh.org.bd  





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]