ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০ ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০

অসহায়দের পাশে হাজী সেলিম ফাউন্ডেশন
হৃদয় দেবনাথ, শ্রীমঙ্গল
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০২০, ১১:৪৫ পিএম আপডেট: ০৮.০৫.২০২০ ১২:৫৯ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 395

করোনার এই সঙ্কটে অসহায়দের পাশে আশীর্বাদ হয়ে আভির্ভূত হয়েছেন হাজী সেলিম। হাজারো অসহায় মানুষের ভরসাস্থল এখন হাজী সেলিম। তিনি কারো ঘর তৈরী করে দিচ্ছেন,কারো আবার মেয়ের বিয়ের যাবতীয় খরচ বহন করে যাচ্ছেন। সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ঐকান্তিক ইচ্ছ নিয়ে শ্রীমঙ্গলে সম্পূর্ণ নিজ উদ্যোগে গড়ে তুলেছেন হাজী সেলিম ফাউন্ডেশন।  

কাতার প্রবাসী ব্যবসায়ী হাজী সেলিম একজন সমাজসেবী। ইতোমধ্যে এলাকার রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে দরিদ্র অসহায় হতদরিদ্র অনেক মানুষের বাড়িঘর নির্মাণ করে দিয়েছেন তিনি।সম্প্রতি এলাকার একটি সড়কের বেহাল দশার কারণে দুর্ভোগের শিকার হতে হয়েছে স্থানীয় হাজারো মানুষের আর এ বিষয়টিও হাজী সেলিমের দৃষ্টি এড়ায়নি। তিনি প্রায় চল্লিশ লক্ষ টাকা ব্যায় করে ইট সলিং রাস্তা নির্মাণ করে দিয়েছেন। এতে স্থানীয় মানুষসহ শিক্ষার্থীরাও চরম দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায় হাজী সেলিম এমন একজন মানুষ যিনি মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন ধরে। এলাকার হতদরিদ্র মেহনতি মানুষের জন্য নিজস্ব অর্থায়নে দু হাত উজাড় করে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে অনেকেই অসহায় কর্মহীন হয়ে পড়েছেন,তাদের পাশেও আশীর্বাদ হয়ে দাঁড়িয়েছেন হাজি সেলিম এর প্রতিষ্ঠিত সংগঠন হাজী সেলিম ফাউন্ডেশন।  প্রায় ২০০০ পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে কাতার থেকে মুঠোফোনে হাজী সেলিম এ প্রতিবেদককে জানান,আমি আল্লাহর অশেষ মেহেরবাণীতে আমি অনেক ধন সম্পদ অর্জন করেছি।আর এ ধনসম্পদ যদি অসহায় মানুষের কল্যানেই কাজে না লাগে এ সম্পদ দিয়ে আমি কি করবো?

তিনি বলেন,পৃথিবীতে জন্মেছি আমাকে মরতেও হবে তাই বিবেকের তাড়নায় অসহায় হতদরিদ্র মানুষের কল্যানের জন্য কিছু করার চেষ্টা করে যাচ্ছি মাত্র। যতদিন বেঁচে আছি অসহায় হত দরিদ্র মানুষের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছি এবং যাবো বলে জানান,প্রচারবিমুখ এ মানুষটি। কোনো রাজনৌতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত কিংবা জনপ্রতিনিধি হওয়ার ইচ্ছে আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন,রাজনীতি এবং জনপ্রতিনিধি হওয়া মানেইতো জনসেবায় কাজ করা। আর আমি ইতোমধ্যে রাজনীতি এবং জনপ্রতিনিধি না হয়েই কাজগুলো করে যেতে পারছি। তাই রাজনীতি বা জনপ্রতিনিধি হওয়ার কোনো ইচ্ছে আমার নেই।

হাজী সেলিম ফাউন্ডেশনের সমন্বয়কারী আব্দুল কাদির জিলানী বলেন, এই মুহূর্তে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের কাজ চলছে!ইতোমধ্যে প্রায় দুই হাজার পরিবারের মাঝে আমরা তা পৌঁছে দিয়েছি।

ঠিক কত পরিবারে বা কোন কোন এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী দিচ্ছেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, হাজী সাহেবের নির্দেশ রয়েছে কোনো নির্ধারিত এলাকা নয় যেখানেই কোনো অসহায় মানুষের খাবারের অভাবে কষ্টে আছেন এমন খবর পেলেই খাবার পৌঁছে দিতে হবে। ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাতগাঁও ইউনিয়নের প্রত্যেকটা টা মসজিদের ইমাম এবং মুয়াজ্জিকে মাহে রমজান মাস উপলক্ষে বিশেষ উপহারসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশনাও রয়েছে।

সাতগাঁও এলাকার হতদরিদ্র রহিমা বেগম (৪৫) বলেন, আমার ঘর নিয়ে খুব কষ্টে ছিলাম বৃষ্টি এলে ঘরে পানি জমতো।  এই বিষয়টি হাজী সাহেব জানার পর আমাকে নতুন ঘর তৈরী করে দিয়েছেন। হাজী সেলিম সাহেবের মতো এমন মানবিক মানুষ সমাজের প্রতিটা ঘরে জন্ম হোক। আমি অন্তর থেকে তার জন্য দোয়া করি।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]