ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ৩১ মে ২০২০ ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার রোববার ৩১ মে ২০২০

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান, ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ২০ মে, ২০২০, ৭:৫৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 32

ডেঙ্গু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষা দিতে পঞ্চম দিনের মতো পাঁচটি অঞ্চলে মশক নিধনে বিশেষ পরিচ্ছন্নতা ও চিরুনি অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

বুধবার চিরুনি অভিযানে ডিএনসিসির পাঁচটি অঞ্চলে মোট ২ হাজার ১৫০টির অধিক বাড়ি, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করা হয়।

এ সময়ে বিভিন্ন বাড়ি, প্রতিষ্ঠান, স্থাপনা ও পরিত্যক্ত জায়গায় এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ১২টি মামলায় মোট ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

অঞ্চল-১ (উত্তরা) এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জুলকার নায়নের নেতৃত্বে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরে মোট এক হাজার ২০টি বাসাবাড়ি, নির্মাণাধীন ভবন ও প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালিত হয়।

এ সময়ে প্রায় ৭৮১টি স্পটে এডিস মশার প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যায়, যার মধ্যে ২২টি স্পটে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেছে।

এডিস মশার প্রজনন উপযোগী সম্ভাব্য সব স্থানে কীটনাশক স্প্রে করা হয়েছে এবং বাড়ির মালিকদের সতর্ক করা হয়েছে। এ সময় দুজনকে দুটি মামলায় মোট ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অঞ্চল-২ (মিরপুর-২) এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামাল মোহাম্মদ রাসেদের নেতৃত্বে মিরপুর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের সেক্টর-৭ এ ৬২৫টি বাসা-বাড়ি, প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনায় চিরুনি অভিযান পরিচালিত হয়।

এ সময় ১৩৯টি স্থানে এডিস মশার প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়া গেলে সেসব স্থানে কীটনাশক স্প্রে করা হয়েছে।

একই সঙ্গে চারটি স্থাপনায় জমে থাকা পানিতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যাওয়ায় চারটি মামলায় মোট ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ১০টি বাড়িতে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

অঞ্চল-৩ (মহাখালী) এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের নর্দা কালাচাঁদপুর এলাকায় ১৫১টি বাড়ি, স্থাপনা ও নির্মাণাধীন ভবনে চিরুনি অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় ১৪৪টি স্থানে এডিস মশার প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়া গেলে সেসব স্থানে কীটনাশক স্প্রে করা হয়েছে।

এছাড়া ছয়টি প্রতিষ্ঠানে জমে থাকা পানিতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ছয়টি মামলায় মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং আরও ১৬টি প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক করা হয়েছে।

অঞ্চল-৪ (মিরপুর-১০) এর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের ১৮৭টি বাসা-বাড়ি, প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনায় চিরুনি অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় ১১৯টি স্থাপনায় এডিস মশার প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়া গেলে সেসব স্থানে কীটনাশক স্প্রে করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছে তবে কোনো জরিমানা করা হয়নি।

অঞ্চল-৫ (কারওয়ান বাজার) এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বে মোহাম্মদপুরের ৩২ নং ওয়ার্ডের লালমাটিয়া নিউ কলোনি ও স্বপ্নপুরী এলাকায় ১৬৭টি হোল্ডিং পরিদর্শন করা হয়। এ সময় উক্ত স্থাপনাসমূহে এডিস মশার লার্ভা ও প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যায়নি। সন্তোষজনক পরিবেশ পাওয়ায় সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে পরবর্তীতেও এমন সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়।

উল্লেখ্য, চলমান চিরুনি অভিযানসহ ডেঙ্গু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষা দিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে গত ১০মে থেকে পরিচালিত অভিযানে এখন পর্যন্ত সর্বমোট ৪ লাখ ৫ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]