ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ৩১ মে ২০২০ ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার রোববার ৩১ মে ২০২০

অস্ট্রেলিয়াকে ভারতের সবুজ সঙ্কেত
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মে, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 8

ভারতীয় ক্রিকেট দলের অস্ট্রেলিয়া সফরের সম্ভাবনা জোরালো হয়েছে আরও। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস বলছেন, শতভাগ নিশ্চিত না হলেও এই সিরিজ হওয়ার সম্ভাবনা এখন শতভাগের কাছাকাছিই। অর্থাৎ ভারতে কাছ থেকে সবুজ সঙ্কেতই পেয়েছে অজিরা। অন্যদিকে এই কর্মকর্তা আরও জানালেন, ভারতের বিপক্ষে সিরিজের আগে সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ড সফরেও যেতে পারে অস্ট্রেলিয়া।
আগামী ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ায় এই সিরিজ খেলার কথা ভারতের। করোনা পরিস্থিতিতে সিরিজ নিয়ে ছিল অনিশ্চয়তা। শঙ্কা আছে এখনও, তবে সময়ের সঙ্গে তা কমে আসছে। এই সিরিজ না হলে ৩০ কোটি অস্ট্রেলিয়ান ডলার আয় থেকে বঞ্চিত হবে সিএ, সিরিজটি আয়োজনে বোর্ড তাই মরিয়া। ভারতীয় দলকে আগেভাগেই সফরে নিয়ে নির্দিষ্ট সময় কোয়ারেন্টাইনে রেখে, পুরো সিরিজ একটি বা দুটি শহরে দর্শকশূন্য মাঠে আয়োজন করার পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতীয় বোর্ড কিছুদিন আগে বলেছে, কোয়ারেন্টাইনে থাকতে তাদের আপত্তি নেই।
অস্ট্রেলিয়ার করোনাভাইরাস পরিস্থিতি এখন যথেষ্ট নিয়ন্ত্রিত। সিরিজের কোনো একটা পর্যায়ে মাঠে দর্শক ঢোকার অনুমতি দেওয়ার সম্ভাবনার ইঙ্গিতও মিলল কেভিন রবার্টসের কথায়, ‘এখনকার বিশে^ নিশ্চিত বলে কোনো কিছু নেই। তাই ১০-এ ১০ আমি বলতে পারছি না। এতটুকু বলতে পারছি, ভারতের সফরে আসার সম্ভাবনা ১০-এ ৯। দর্শক থাকবে কি না, সেটি অবশ্য এখনও দোলাচলে আছে। তবে ভারতের সফর না হলে আমি বিস্মিত হব। শুরু থেকে দর্শকদের পুরোপুরি রাখতে পারব কি না, সেটি নিশ্চিত বলতে পারছি না। অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
ভারতের বিপক্ষে সিরিজের আগেই অস্ট্রেলিয়া দলকে দেখা যেতে পারে মাঠে। জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে তাদের ওয়ানডে সিরিজটি স্থগিত হয়েছে আগেই। সেটি এখন হতে পারে সেপ্টেম্বরে। তার আগেই উইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইংল্যান্ড।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]