ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০

বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীসহ সাংবাদিকরা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মে, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 54

ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মোকাবিলায় মাঠে থেকে সক্রিয়ভাবে কাজ করছে বিমানবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় জরুরি বিমান পরিবহন সহায়তার অংশ হিসেবে বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাতের নির্দেশনায় শুক্রবার ত্রাণ ও ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার ও গণমাধ্যম কর্মীরা ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের উদ্দেশে বিমানবাহিনীর ১টি এমআই-১৭এসএইচ হেলিকপ্টার এবং ১টি অগাস্টা-১৩৯ হেলিকপ্টারে করে সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী ও ভাষানচর এলাকা পরিদর্শন করেন। গতকাল আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
আইএসপিআর জানায়, পরিদর্শনকালে গণমাধ্যমকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার ফটো ও ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। গণমাধ্যমকর্মীদের পরিদর্শন রিপোর্ট কর্তৃপক্ষকে আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
আইএসপিআর আরও জানায়, বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর মেডিকেল ইভাকোয়েশন সহায়তা প্রদানের ধারাবাহিকতায় বিমানবাহিনীর ১১৯ জন সদস্য আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা প্রদানের উদ্দেশে সাতক্ষীরায় অবস্থান করছেন। তারা শুক্রবার আম্ফান উপদ্রুত সাতক্ষীরার দক্ষিণ আলিপুর এলাকার মানুষদের চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি রাস্তাঘাট ও ঘরবাড়ির ওপর উপড়ে পড়া গাছপালা সরিয়ে রাস্তাঘাট চলাচল উপযোগী এবং ঘরবাড়ি মেরামতের কাজে সহায়তা প্রদান করেন। এ ছাড়াও, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান উপদ্রুত এলাকার মানুষের জন্য বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের নিমিত্তে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট, জেনারেটর, ওয়াটার কন্টেনার, ইলেকট্রিক মোটর পাম্পসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম সাতক্ষীরায় পাঠানো হয়েছে।
এদিকে আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতিতেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে শুক্রবার বিমানবাহিনী র‌্যাডার ইউনিট, মৌলভীবাজার এবং বিমানবাহিনী স্টেশন শমশেরনগর এলাকার এতিম শিশুদের মাঝে মানবিক সহায়তা হিসেবে উপযুক্ত প্যাকেটের মাধ্যমে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও ঈদ উপহার বিতরণ করে।
উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বিমানবাহিনীর ৬টি পরিবহন বিমান এবং ২৯টি হেলিকপ্টার সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর ঘাঁটি বাশার এ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সেল গঠনসহ বিমানবাহিনীর সব ঘাঁটিতে ২৪ ঘণ্টা প্রয়োজনীয় সহায়তার প্রদানের জন্য অপস্ রুম খোলা আছে। যেকোনো ধরনের দুর্যোগ মোকাবিলায় পেশাদারিত্বের সঙ্গে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী জাতীয় কাজ করে যাচ্ছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]