ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ ২২ আষাঢ় ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ৬ জুলাই ২০২০

ত্রিপুরায় হবিগঞ্জের যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ৪ দিনেও লাশ ফেরত দেয়নি
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 11

গরুচোর অপবাদ দিয়ে হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার লোকমান হোসেন (৩২) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয় নাগরিকরা। এ ঘটনার চার দিনেও লাশ ফেরত দেওয়া হয়নি। নিহত লোকমান মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের মালঞ্চপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিমের ছেলে।
বুধবার বিকালে বাংলাদেশের মোহনপুরে ১৯৯৪/৪ এস পিলারে কাছে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক হয়। এ সময় ভারতের পক্ষে বিএসএফের ১২০ ব্যাটালিয়নের মোহনপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইন্সপেক্টর শশি কান্ত ও বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৫৫ বিজিবির ধর্মঘর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন। ভারতের পশ্চিম ত্রিপুরা রাজ্যের মোহনপুর সীমান্ত দিয়ে লাশ হস্তান্তর করার কথা ছিল। কিন্তু ভারতীয় পুলিশ ময়নাতদন্ত, সুরতহাল রিপোর্ট আনুষঙ্গিক কাগজপত্র ছাড়া লাশ হস্তান্তর করতে চায়। এতে বিজিবি-পুলিশের প্রতিনিধিরা অস্বীকৃতি জানান।
এর আগে ২৪ মে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের মোহনপুর এলাকায় তার ফুফুর বাড়ি যাচ্ছিলেন লোকমান হোসেন। ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের গোপালনগর পৌঁছতেই একদল ভারতীয় নাগরিক তার পথরোধ করে গরুচোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করে।
ভারতীয় কয়েকটি গণমাধ্যমে লোকমানের আকুতির ভিডিও প্রচার হয়েছে। তবে গরুচোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তার মৃত্যুর খবর ত্রিপুরার গণমাধ্যম সম্প্রচার করেছে। মৃত ভেবে ভারতীয়রা লোকমানকে বাংলাদেশ সীমান্তের অদূরে একটি জঙ্গলে ফেলে রাখে। খবর পেয়ে পশ্চিম ত্রিপুরা রাজ্যের সিধাই থানা পুলিশ মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে লোকমানের মৃত্যু হয়।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]